আমেরিকা‘সর্বশক্তিমান ঈশ্বর’ এসে বললে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করব: বাইডেন

‘সর্বশক্তিমান ঈশ্বর’ এসে বললে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করব: বাইডেন

- Advertisment -spot_img

যুক্তরাষ্ট্র অফিস

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বিতর্কে বিপর্যয়কর ফলাফলের পর থেকে নির্বাচন থেকে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের জন্য চাপ আসছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ওপর। তবে এসব চাপকে তিনি পাত্তাই দিচ্ছেন না।

শুক্রবার এক সাক্ষাৎকারে বাইডেন জানান, এসব চাপ তিনি গুরুত্ব দিচ্ছেন না এবং একমাত্র ‘সর্বশক্তিমান ঈশ্বর’ এসে বললে তিনি প্রার্থিতা প্রত্যাহার করবেন। খবর রয়টার্সের।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শুক্রবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম এবিসি নিউজকে একটি সাক্ষাৎকার দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সাক্ষাৎকারে বাইডেনকে বলা হয়, তার রাজনৈতিক দল ডেমোক্রেটিক পার্টির বেশ কয়েকজন সদস্য চাইছেন তিনি যেন নভেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য প্রেসিডেন্ট নির্বাচন থেকে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেন। এ বিষয়ে তার প্রতিক্রিয়া কী?

জবাবে বাইডেন বলেন, ‘আমি প্রার্থিতা প্রত্যাহার করছি না। যদি সর্বশক্তিমান ঈশ্বর এসে আমাকে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের আদেশ দেন, তাহলে আমি করতে পারি।’

এর আগে শুক্রবার নিজ শহর উইসকনসিনে ডেমোক্রেটিক পার্টির ভোটারদের একটি সমাবেশে যোগ দেন বাইডেন। সে সময় কর্মসূচির ফাঁকে এবিসিকে সাক্ষাৎকার দেন তিনি। ট্রাম্পের সঙ্গে বিতর্কে ধারাশায়ী হওয়ার পর থেকে যে পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন বাইডেন, তাতে এই সাক্ষাৎকারটিকে তাঁর জন্য ‘বড় পরীক্ষা’ বলে উল্লেখ করেছেন অনেকে।

সাক্ষাৎকারটি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের জন্য বেশ চ্যালেঞ্জিং ছিল। কারণ, সম্পূর্ণ আলোচনা হয়েছে আনস্ক্রিপটেড প্রশ্নভিত্তিক। কোনো সাক্ষাৎকারে যেসব প্রশ্ন করা হবে, সেসব যখন সাক্ষাৎকার গ্রহণের আগে লিখিত আকারে সাক্ষাৎকারদাতাকে প্রদান করা হয়, তখন সেটিকে বলা হয় ‘স্ক্রিপটেড’ সাক্ষাৎকার।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের আয়োজনে গত ২৭ জুন ডোনাল্ড ট্রাম্প ও জো বাইডেনের মধ্যে প্রথম নির্বাচনী বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়। বিতর্কে দেশের অর্থনীতি, পররাষ্ট্রনীতি ও অভিবাসন ইস্যুতে বাইডেনের তীব্র সমালোচনা করেন ট্রাম্প। তবে যুক্তি দিয়ে সেসব সমালোচনা খণ্ডন করতে অনেকটা ব্যর্থ হন বাইডেন।

বিতর্কের পর তাৎক্ষণিক এক জরিপে জানা গেছে, বিতর্ক অনুষ্ঠানটি দেখেছেন— এমন দর্শকদের মধ্যে ৬৭ শতাংশেই যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে দেখতে চান।

কী কারণে সেদিনের বিতর্কে এমন বিপর্যয় ঘটল— এ সংক্রান্ত এক প্রশ্নের উত্তরে বাইডেন বলেন, “তেমন বড় কোনো কারণ নেই। আমি ক্লান্ত ছিলাম। প্রস্তুতিতে খানিকটা ঘাটতি ছিল….আসলে ওটা ছিল একটা বাজে রাত। আমি শুধু একটা বাজে রাত কাটিয়েছি। কেন এমন হলো আমি জানি না।”

“তবে (বিতর্কের সময়) শারীরিকভাবে খুব দুর্বল বোধ করছিলাম। কোভিডে আক্রান্ত হয়েছি কি না— এমন আশঙ্কাও হয়েছিল। এমনকি অনুষ্ঠান শেষে আমি করোনা টেস্টও করিয়েছি।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest news

বাংলাদেশে চলমান অস্থিরতায় প্রবাসীদের সাথে নিউইয়র্ক মেয়রের সংহতি

বাংলাদেশের চলমান বিক্ষোভের প্রেক্ষিতে বাংলাদেশি সম্প্রদায়ের প্রতি সংহতি জানালেন মেয়র এরিক অ্যাডামস এরিক অ্যাডামস বাংলাদেশের চলমান সহিংস বিক্ষোভ নিয়ে উদ্বেগ...

জার্মানির বাংলাদেশ দূতাবাসের সামনে কোটা আন্দোলনে সংহতি জানিয়ে বিক্ষোভ

জার্মানি প্রতিনিধি কোটা সংস্কারের দাবীতে চলমান আন্দোলনে সাধারণ শিক্ষার্থীদের সাথে সংহতি জানিয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে বার্লিনের বাংলাদেশ দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ মিছিল...

বাংলাদেশে ছাত্র-ছাত্রীদের হত্যা, নির্যাতনের প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে ইতালি প্রবাসীরা

মালিক মনজুর ইতালি প্রতিনিধি বাংলাদেশে কোটা সংস্কার আন্দোলনকে কেন্দ্র করে পুলিশ ও ছাত্রলীগ দ্বারা সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীদের হত্যা, নির্যাতনের প্রতিবাদে সাংবাদিক...

গুলিবিদ্ধ হয়ে ঢাকা টাইমসের সাংবাদিক মেহেদী নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা রাজধানীর যাত্রবাড়িতে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালে এক সাংবাদিক নিহত হয়েছেন। নিহত সাংবাদিকের নাম...
- Advertisement -spot_img

ইউরোপের কাছে সহায়তার আর্জি তিউনিশিয়ার

ডেস্ক রিপোর্ট তিউনিশিয়ার প্রধানমন্ত্রী বুধবার ইউরোপীয় দেশগুলোর কাছে আর্থিক সহায়তা বৃদ্ধির আহ্বান জানিয়েছেন। সাব-সাহারান আফ্রিকা থেকে আসা অভিবাসী প্রবাহ মোকাবেলা...

আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে চলমান আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন।বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) সন্ধ্যায়...

Must read

বাংলাদেশে চলমান অস্থিরতায় প্রবাসীদের সাথে নিউইয়র্ক মেয়রের সংহতি

বাংলাদেশের চলমান বিক্ষোভের প্রেক্ষিতে বাংলাদেশি সম্প্রদায়ের প্রতি সংহতি জানালেন...

জার্মানির বাংলাদেশ দূতাবাসের সামনে কোটা আন্দোলনে সংহতি জানিয়ে বিক্ষোভ

জার্মানি প্রতিনিধি কোটা সংস্কারের দাবীতে চলমান আন্দোলনে সাধারণ শিক্ষার্থীদের সাথে...
- Advertisement -spot_img

You might also likeRELATED
Recommended to you