অভিবাসনভিসানীতিতে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ আমিরাতের, বিপাকে বাংলাদেশিরা

ভিসানীতিতে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ আমিরাতের, বিপাকে বাংলাদেশিরা

- Advertisment -spot_img

আমিরাত প্রতিনিধি:

বাংলাদেশিদের জন্য ভিসানীতিতে কঠোর বিধিনিষেধ জারি করেছে বাংলাদেশের অন্যতম শ্রমবাজার সংযুক্ত আরব আমিরাত। ভিজিট ভিসা, আনস্কিলড লেবার ভিসা ও পার্টনার ভিসা প্রদানে কঠিন কঠিন শর্ত জুড়ে দিয়েছে দেশটি। এখন সহজে মিলছে না আমিরাতের ভিসা। ফলে মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশটিতে বাংলাদেশিদের যে ঢল ছিল তা কমে এসেছে। এতে রেমিটেন্সেও প্রভাব পড়বে বলে জানিয়েছেন প্রবাসীরা।

সাম্প্রতিক বাংলাদেশে রেমিটেন্স প্রেরণে বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যে শীর্ষে আরব আমিরাত। কিন্তু নতুন ভিসানীতি আরোপ করায় দেশটিতে অবস্থানরত বাংলাদেশি ব্যবসায়ী ও শ্রমিকরা ব্যাপকভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হবেন।

দেশটিতে বসবাসরত বাংলাদেশি প্রবাসী সূত্রে জানা গেছে, মূলত দীর্ঘদিন ধরেই ভিসার মেয়াদ শেষেও অবৈধভাবে বসবাস, লিঙ্গ পরিবর্তন, সনদ জালিয়াতিসহ বিভিন্ন সময়ে নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠে আরব আমিরাতে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের বিরুদ্ধে। এই প্রবণতা ঠেকাতে দেশটিতে বিভিন্ন ক্যাটাগরির ভিসাতে ব্যাপক কঠোরতা নিয়ে এসেছে দেশটি। এর ফলে চরমভাবে বিপাকে পড়েছেন বাংলাদেশি ভিসা প্রার্থীরা।

এদিকে স্কিল ভিসার ক্ষেত্রেও রয়েছে চরম কঠোরতা। সত্যায়িত গ্রাজুয়েশন সার্টিফিকেট ছাড়া কোনো বাংলাদেশিকে ভিসা দেওয়া হচ্ছে না। যারা সার্টিফিকেট দিচ্ছেন তাদের সার্টিফিকেটগুলো বাংলাদেশের শিক্ষা মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সত্যায়ন করার পর, মূল সার্টিফিকেট পুনরায় বাংলাদেশ দূতাবাস বা কন্সূলেটে সত্যায়ন করতে হয়। এরপর আমিরাতের বৈদেশিক মন্ত্রণালয় থেকে সত্যায়নের পর মিলবে চাকরির ভিসা।

এ বিষয়ে শারজাহ সমিতির সহ-সভাপতি ইসমাইল গণি বলেন, আমিরাতে নতুনভাবে যে ভিসানীতি প্রণয়ন করা হয়েছে, এর ফলে বাংলাদেশ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। দেশটিতে অবস্থানরত বাংলাদেশি যে ব্যবসায়ীরা রয়েছেন, তাদের জন্য কঠিন পরিস্থিতি তৈরি হবে।

তিনি বলেন, যদি দ্রুত ভিসানীতি সহজ করার জন্য কূটনৈতিকভাবে উদ্যোগ নেওয়া না হয়, তাহলে রেমিট্যান্স প্রবাহ কমে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে এবং প্রবাসী বাংলাদেশিরা বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হবে।

আল-মানামা টাইপিং সেন্টারের মালিক কামাল হোসেন সুমন বলেন, দুবাইতে আগে একটি লাইসেন্সে তিন চারজনের পার্টনার ভিসা করার সুযোগ থাকলেও বর্তমানে তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে একটি লাইসেন্সে মাত্র একজন ওনার বা পার্টনার ভিসা করার সুযোগ রয়েছে। তবে সেক্ষেত্রে তাকে প্রতিষ্ঠান ও ব্যবসা দেখাতে হবে।

এদিকে বর্তমানে বাংলাদেশিদের জন্য ভিজিট ভিসা অনেকটাই বন্ধ রয়েছে। ভিজিট ভিসার জন্য আবেদন করলে ৮০% আবেদন রিজেক্ট হচ্ছে। কেউ কেউ ভিজিট পাওয়ার পর দুবাই ঢোকার চেষ্টা করলেও তাদের অনেককেই নানা কারণ দেখিয়ে এয়ারপোর্ট থেকে ফেরত পাঠানো হচ্ছে। এতে হাতছাড়া হয়ে যাচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যের এই বিশাল শ্রমবাজার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest news

বাংলাদেশে চলমান অস্থিরতায় প্রবাসীদের সাথে নিউইয়র্ক মেয়রের সংহতি

বাংলাদেশের চলমান বিক্ষোভের প্রেক্ষিতে বাংলাদেশি সম্প্রদায়ের প্রতি সংহতি জানালেন মেয়র এরিক অ্যাডামস এরিক অ্যাডামস বাংলাদেশের চলমান সহিংস বিক্ষোভ নিয়ে উদ্বেগ...

জার্মানির বাংলাদেশ দূতাবাসের সামনে কোটা আন্দোলনে সংহতি জানিয়ে বিক্ষোভ

জার্মানি প্রতিনিধি কোটা সংস্কারের দাবীতে চলমান আন্দোলনে সাধারণ শিক্ষার্থীদের সাথে সংহতি জানিয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে বার্লিনের বাংলাদেশ দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ মিছিল...

বাংলাদেশে ছাত্র-ছাত্রীদের হত্যা, নির্যাতনের প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে ইতালি প্রবাসীরা

মালিক মনজুর ইতালি প্রতিনিধি বাংলাদেশে কোটা সংস্কার আন্দোলনকে কেন্দ্র করে পুলিশ ও ছাত্রলীগ দ্বারা সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীদের হত্যা, নির্যাতনের প্রতিবাদে সাংবাদিক...

গুলিবিদ্ধ হয়ে ঢাকা টাইমসের সাংবাদিক মেহেদী নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা রাজধানীর যাত্রবাড়িতে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালে এক সাংবাদিক নিহত হয়েছেন। নিহত সাংবাদিকের নাম...
- Advertisement -spot_img

ইউরোপের কাছে সহায়তার আর্জি তিউনিশিয়ার

ডেস্ক রিপোর্ট তিউনিশিয়ার প্রধানমন্ত্রী বুধবার ইউরোপীয় দেশগুলোর কাছে আর্থিক সহায়তা বৃদ্ধির আহ্বান জানিয়েছেন। সাব-সাহারান আফ্রিকা থেকে আসা অভিবাসী প্রবাহ মোকাবেলা...

আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে চলমান আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন।বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) সন্ধ্যায়...

Must read

বাংলাদেশে চলমান অস্থিরতায় প্রবাসীদের সাথে নিউইয়র্ক মেয়রের সংহতি

বাংলাদেশের চলমান বিক্ষোভের প্রেক্ষিতে বাংলাদেশি সম্প্রদায়ের প্রতি সংহতি জানালেন...

জার্মানির বাংলাদেশ দূতাবাসের সামনে কোটা আন্দোলনে সংহতি জানিয়ে বিক্ষোভ

জার্মানি প্রতিনিধি কোটা সংস্কারের দাবীতে চলমান আন্দোলনে সাধারণ শিক্ষার্থীদের সাথে...
- Advertisement -spot_img

You might also likeRELATED
Recommended to you