অভিবাসনএক বছরে ৯৪ হাজার অভিবাসনপ্রত্যাশী লাম্পেদুসায়

এক বছরে ৯৪ হাজার অভিবাসনপ্রত্যাশী লাম্পেদুসায়

- Advertisment -spot_img

ডেস্ক রিপোর্ট

ইতালির দ্বীপ লাম্পেদুসায় ২০২৩ সালের ১ জুন এবং ২০২৪ সালের ৩১ মের মধ্যে ৯৪ হাজারেরও বেশি অভিবাসনপ্রত্যাশীকে গ্রহণ করা হয়েছে।

রেড ক্রসের ইতালিয় শাখার প্রধান রোজারিও ভালাস্ত্রো এই পরিসংখ্যান জানান। গত বছর থেকে রেড ক্রস লাম্পেদুসার অভিবাসী গ্রহণের বিষয়টি দেখভাল করছে।

২০২৩ সালের ১ জুন এবং ২০২৪ সালের ৩১ মে’র মধ্যে মোট ৯৪ হাজার ২৯০ জন অভিবাসনপ্রত্যাশীকে লাম্পেদুসায় গ্রহণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৭২.৪ শতাংশ পুরুষ, ৯.৪ শতাংশ নারী এবং ১৮.২ শতাংশ অপ্রাপ্তবয়স্ক অর্থাৎ নাবালক।

এক বছরে এই দ্বীপে আসার মোট দুই হাজার ২৬৪টি চেষ্টা হয়েছে এবং তাতে প্রতিদিন গড়ে ৬৯৮ জন এসেছেন। এই অভিবাসনপ্রত্যাশীরা অন্যত্র স্থানান্তরিত হওয়ার আগে গড়ে মোট ২.৬৭ দিন লাম্পেদুসায় ছিলেন।

অভিবাসনপ্রত্যাশীরা ৪৭টি দেশ থেকে লাম্পেদুসায় এসেছেন। যার মধ্যে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক অভিবাসনপ্রত্যাশী এসেছেন গিনি থেকে (১৩.৭ শতাংশ), এরপরে রয়েছে তিউনিশিয়া (১৩.১ শতাংশ), বাংলাদেশ (৯.৭ শতাংশ), সিরিয়া (৮.৭ শতাংশ) এবং আইভরি কোস্ট (৮.৪ শতাংশ)। এই পাঁচটি দেশ মোট অভিবাসনপ্রত্যাশী আগমনের ৫৩.৬ শতাংশের জন্য দায়ী।

লাম্পেদুসা হটস্পট এখন ‘মানবতার ঘর’

ইতালির রেড ক্রসের প্রেসিডেন্ট রোজারিও ভালাস্ত্রো জানান, “এক বছর আগে আমি বলেছিলাম, লাম্পেদুসাকে মানবতা কেন্দ্রে রূপান্তরিত করব। স্বেচ্ছাসেবী, কর্মী, কর্তৃপক্ষ এবং অন্যান্য সংস্থার সাহায্যে এটা সম্ভব হয়েছে।”

তার কথায়, “প্রতিদিন, আমরা মানুষের সম্মান রক্ষার বিষয়ে জোর দিয়েছি। হাসিমুখে উদ্ধারকাজ চলেছে। এটাই ফারাক তৈরি করেছে।”

দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের পাশে থাকা

ভালাস্ত্রো বলেন, “অভিবাসনের ঘটনাকে অসাধারণ কোনো ঘটনা হিসাবে দেখা ঠিক নয়। বরং একে আমাদের ইতিহাস, আমাদের বর্তমান এবং আমাদের দৈনন্দিন জীবনের অংশ হিসাবে দেখা উচিত। যারা কঠিন পরিস্থিতির মাঝে সংকট থেকে পালিয়ে আসছে, তাদের প্রতি মানবিক আচরণ করা উচিত। সম্মান করা উচিত। দুর্ভিক্ষ, সহিংসতা পেরিয়ে ইতিবাচক ভবিষ্যতের সন্ধানে আসেন এই মানুষগুলো। তারা চান, আর কখনো যেন তাদের কিংবা তাদের পরবর্তী প্রজন্মকে বিপদের মুখে পড়তে না হয়।”

দুর্দশাগ্রস্ত মানুষদের জন্য সবমিলিয়ে জন্য এক হাজার ৮২৭টি আবেদন করেছে রেড ক্রস। সেখানে জানা গিয়েছে লাম্পেদুসায় আসা অভিবাসীদের এক হাজার ১৫৫ জনের জন স্বাস্থ্যসেবা সহায়তা প্রয়োজন। অভিবাসীদের মধ্যে ৬৯৮ জন অন্তঃসত্ত্বা, ৩৭৪ জন মানসিক, শারীরিক বা যৌন সহিংসতার শিকার, ৫০ জন নির্যাতনের শিকার, ২৫৫ জন শারীরিক প্রতিবন্ধী।

এছাড়াও অভিবাসীদের মধ্যে ৮৯ জন গুরুতর অসুস্থতা বা মানসিক সমস্যায় ভুগছেন। ২৫ জন সম্ভাব্য পাচারের শিকার এবং ১৪ জন নারী অভিবাসী যৌনাঙ্গ বিচ্ছেদের শিকার হয়েছেন।
সূত্র: ইনফোমাইগ্রেন্টস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest news

সোনার দাম বাড়ল

ঢাকা অফিস বাংলাদেশের বাজারে সোনার দাম ফের বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে বাজুস। সব থেকে ভালো মানের বা ২২ ক্যারেটের এক ভরি...

জামালপুরে বন্যার পানিতে গোসলে নেমে ৪ জনের মৃত্যু

জামালপুর প্রতিনিধি: জামালপুরে বন্যার পানিতে গোসল করতে নেমে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। রোববার (১৪ জুলাই) মেলান্দহ উপজেলার শ্যামপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ বালুচর...

বাংলাদেশ থেকে তিন হাজার কর্মী নেবে ইইউ‘র চার দেশ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত (ইইউ) চারটি দেশ বাংলাদেশ থেকে তিন হাজার কর্মী নেবে। দেশ চারটি হলো ইতালি, জার্মানি, গ্রিস...

কোটা পুনর্বহাল করে‌ হাইকোর্টের রায়ের পূর্ণাঙ্গ কপি প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাসহ কোটা পদ্ধতি বাতিলের পরিপত্র অবৈধ ঘোষণা করে পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট। রোববার (১৪ জুলাই)...
- Advertisement -spot_img

কোটার সমাধান আদালতের মাধ্যমেই হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা কোটাবিরোধী আন্দোলন ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কোটা পদ্ধতি বাতিলের দাবিতে শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে বাধা নেই, তবে...

মুক্তিযোদ্ধার নাতি-নাতনিরা পাবে না তো রাজাকারের নাতিরা পাবে?

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা ২০১৮ সালে আন্দোলন ও সহিংসতার ঘটনায় বিরক্ত হয়ে কোটা বাতিল করেছিলেন উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,...

Must read

সোনার দাম বাড়ল

ঢাকা অফিস বাংলাদেশের বাজারে সোনার দাম ফের বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে...

জামালপুরে বন্যার পানিতে গোসলে নেমে ৪ জনের মৃত্যু

জামালপুর প্রতিনিধি: জামালপুরে বন্যার পানিতে গোসল করতে নেমে চারজনের মৃত্যু...
- Advertisement -spot_img

You might also likeRELATED
Recommended to you